মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলা ঐতিহ্য

পলাশ উপজেলা নরসিংদী জেলার অন্যতম গুরুত্বপুর্ন উপজেলা। ইহা নরসিংদী জেলা শহর হতে ১০ কি:মি: দুরে অবস্থিত। এর মোট আয়তন ৯৪.৪৩ বর্গ কি:মি:। পলাশ উপজেলা সদরের অদুরে অবস্থিত পারুলিয়া এক সময় এ অঞ্চলের রাজধানী ছিল বলে যানা যায়। এ অঞ্চলের তৎকালিন জমিদার নরসিংহের নামানুসারেই প্রথমে নরসিংহদী এবং পরবর্তীতে নরসিংদী নামের উৎপত্তি হয়েছে বলে ধারনা করা হয়।

নরসিংদী ও গাজীপুর জেলার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত শীতলক্ষ্যা নদীর পুর্ব পারে পলাশ উপঝেলা অবস্থিত। উত্তরে শিবপুর, পূর্বে শিবপুর ও নরসিংদী সদর, দক্ষিনে নরসিংদী জেলা সদর এবং নারায়নগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলা অবস্থিত। এ উপজেলাটি প্রায় ২৩.৫৩ এবং ২৪.৩৩ডিগ্রি উত্তর অক্ষাংশে এবং ৯০.৩৩ ো ৯.৪৩ ডিগ্রী পুর্ব দক্ষিন অক্ষাংশের মধ্যে অবস্থিত।

এ উপজেলায় তাপমাত্রা সর্ব্বোচ্চ ৩১ ডিগ্রী এবং সর্ব নিম্ন ১৩ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড। উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা আনুপাতিক হারে উন্নত। এ উপজেলায় ১৫ কি:মি: রেল লাইন আছে। ঘোড়াশাল সার কারখানা, তাপ বিদ্যুত কেন্দ্র, প্রান ডেইরি সহ ১৪টি বৃহত শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

পলাশ উপজেলায় সমগ্র ভূ-খন্ডের মধ্যে প্রায় ০৪ বর্গ কি:মি: এলাকা জুড়ে নদী ও জলাশয় রয়েছে। এর ভূ-প্রকৃতিগত গঠন বিশ্লেষনে দেখা যায় যে, শতকরা ৩০ ভাগ এলাকা মধুপুর গড় ভূমির অন্তর্গত। বাকী ৭০ ভাগ এলাকা ব্রক্ষপুত্র নদের পলল গঠিত অসমতল ভূমি।

কলা, কাঁকরোল, কাঁঠাল, শশা, সিম, বেগুন, জিঙ্গা, ধান, লাউ ইত্যাদি উল্লে­খযোগ্য। পলাশ উপজেলা বাংলাদেশের একটি অন্যতম কৃষি সমৃদ্ধ উপজেলা হিসেবে পরিচিত লাভ করেছে। পলাশ উপজেলা থেকে লেবু ও বিভিন্ন সবজি বিদেশে সুনামের সহিত রপ্তানী করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা হচ্ছে। 

১। শীতলক্ষ্যা নদী।

২। ডাংগা জমিদার বাড়ি।

৩। পারুলিয়া দরগা মসজিদ।

৪। প্রাণ গ্রুপ লি:,ঘোড়াশাল।

৫। আর এফ এল গ্রুপ লি: ঘোড়াশাল ।

৬। পূবালী জুট মিলস লি:

৭। চরকা (প্রাণ) টেক্সটাইল লি:, ডাংগা ।

৮। দেশবন্দু সুগার মিলস্, চরসিন্দুর।

ছবি


সংযুক্তি