মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলা প্রশাসনের পটভুমি

পলাশ উপজেলা নরসিংদী জেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা। ইহা নরসিংদী জেলা সদর হতে ১০ কি.মি. দূরে ও ঢাকা হতে ৫৯ কি.মি. দূরে অবস্থিত। এর মোট আয়তন প্রায় ৯৪.৪৩ বর্গ কি: মি:। পলাশ উপজেলা সদরের অদূরে অবস্থিত পারুলিয়া এক সময় এ অঞ্চলের রাজধানী ছিল বলে ইতিহাসে উল্লেখ পাওয়া যায়। এ অঞ্চলের তৎকালীন জমিদার  নরসিংহের নামানুসারেই প্রথমে নরসিংহদী এবং (ডিহি থেকে দী, ডিহি অর্থ অঞ্চল বা এলাকা) পরবর্তীতে নরসিংদী নামের উৎপত্তি  হয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

নরসিংদী ও গাজীপুর জেলার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্বপাড়ে পলাশ উপজেলা অবস্থিত। উওরে শিবপুর উপজেলা, উপজেলায় ১৫ কি.মি. রেল লাইন আছে। এখানে মোট ১৪ টি বৃহৎ শিল্পপ্রতিষ্ঠান রয়েছে, তন্মধ্যে ঘোড়াশাল সারকারখানা এবং ঘোড়াশাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, প্রাণ-ডেইরি উল্লেখযোগ্য স্থাপনা হিসেবে অগ্রাধিকার প্রাপ্ত শিল্প প্রতিষ্ঠান। তাছাড়া এখানে উন্নত মানের তাঁতশিল্প ও অন্যান্য কুটির শিল্প রয়েছে।পূর্বে শিবপুর ও নরসিংদী সদর, দক্ষিণে নরসিংদী জেলা সদর ও নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলা অবস্থিত। উপজেলার উত্তর পূর্ব দিক দিয়ে পুরাতন ব্রক্ষপুত্র নদী (মরানদী) প্রবাহিত। এ উপজেলাটি  প্রায় ২৩.৫৩  ও  ২৪.৩৩ ডিগ্রী উত্তর অক্ষাংশে এবং ৯০.৩৩ ও ০৯.৪৩ ডিগ্রী পূর্ব দক্ষিণ অক্ষাংশের মধ্যে অবস্থিত।

এ উপজেলায় সাধারণতঃ সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩১ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড। পলাশ উপজেলা মোট ০৪ টি ইউনিয়ন,০১টি পৌরসভা এবং ১০৪ টি  গ্রাম নিয়ে গঠিত। ২০১১ সালের আদম শুমারী অনুযায়ী এ উপজেলার লোক সংখ্যা ২,১২,৪০০ (দুই লক্ষ বারো হাজার চারশত) জন। উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা আনুপাতিক হারে উন্নত। উপজেলা সদর হতে সকল ইউনিয়ন পরিষদের সাথে পাকা সড়ক যোগাযোগ রয়েছে। প্রধান যানবাহন হিসেবে বাস, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, রিকসা, অটোরিকসা, ভ্যান ও নৌকা ব্যবহৃত হয়। এ

 

      পলাশ উপজেলার সমগ্র ভূ-খন্ডের মধ্যে প্রায় ০৪ বর্গ কি.মি. এলাকা জুড়ে নদী ও জলাশয় রয়েছে। এর ভূ-প্রকৃতিগত গঠন বিশ্লেষণে দেখা যায় যে, শতকরা ৩০ ভাগ এলাকা মধুপুর গড় ভূমির অন্তর্গত। বাকী ৭০ ভাগ এলাকা ব্রক্ষপুত্র নদের পলল গঠিত অসমতল ভূমি।