মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

নোয়াকান্দা বক্তারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

বিদ্যালয়টি নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলাধীন গজারিয়া ইউনিয়নের নোয়াকান্দা ও বক্তারপুর গ্রামে অবস্থিত।

বিদ্যালয়টি অত্র এলাকার একটি প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ব্রিটিশ শাসন আমলের শেষ দিকে প্রথমে জুনিয়র মাদ্রাসা হিসেবে স্থানীয় গণ্যমান্য ও শিক্ষানুরাগীদের উদ্যোগে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয় এতে বিশেষ ভূমিকা রাখেন আলহাজ্ব মোঃ মিজানুর রহমান চৌধুরী। অন্যান্য শিক্ষানুরাগীদের মধ্যে আলহাজ্ব মোঃ মিছিল উদ্দীন চৌধুরী জনাব মোঃ নওয়াব আলী মাস্টার এবং কিছমত আলীর ভূমিকা বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার কযেকদশক পর আর্থিক অনটনে পরে বিদ্যালয়টি বিলুপ্ত হবার উপক্রম হয় পরবর্তীতে স্থানীয় উদ্ধিপনায় এবং গ্রাম বাসীর আর্থিক সহযোগীতায় প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। স্বাধীনতা উত্তর কালে ১৯৭৩ সালে বিদ্যালয়টি জাতীয়করন করা হয়। বিদ্যালয়টি ফলাফল সমেত্মাষজনক। ব্রিটিশ আমল থেকে প্রায় প্রতি বৎসরই বিভিন্নি গ্রেডে বৃত্তি পেয়ে আসছে এবং মাদ্রাসা থাকাকালীন সময় সমগ্র বেঙ্গলে প্রথম স্থান অধিকার করা গৌরব অর্জন করে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
ইয়াছমিন বেগম ০১৯১৩-৯৩২৯১৪ ueopalash@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
বীথিকা রানী মিত্র ০১৯২৬-৮৩৩০৪৬ ueopalash@gmail.com
অনিল চন্দ্র দাস ০১৭২৯-৬৪০৫০০ ueopalash@gmail.com

শিশু শ্রেণী- ১৬জন, ১ম শ্রেণী- ৫৪জন , ২য় শ্রেণী- ৪১জন ৩য় শ্রেণী- ৫৬জন , ৪র্থ শ্রেণী- ৪৬জন, ৫ম শ্রেণী- ৩২জন।

১০০%

গঠন ২৪.০৩.২০১০, অনুমোদন- ৩০.০৩.২০১০, সদস্য সংখ্যা- ১২, পুরুষ-৬জন, মহিলা- ৬জন।

২০০৮ সালে সমাপনী পরীক্ষার পাশের হারঃ ৭১%

২০০৯ সালে সমাপনী পরীক্ষার পাশের হারঃ ৯৫%

২০১০ সালে সমাপনী পরীক্ষার পাশের হারঃ ১০০%

২০১১ সালে সমাপনী পরীক্ষার পাশের হারঃ ১০০%

২০১২ সালে সমাপনী পরীক্ষার পাশের হারঃ ১০০%

সুবিধাভোগী পরিবারের সংখ্যা ১০৫ জন, একক-১০৪জন এবং একাধিক ১।

ব্রিটিশ আমল থেকে প্রায় প্রতি বৎসরই বিভিন্নি গ্রেডে বৃত্তি পেয়ে আসছে এবং মাদ্রাসা থাকাকালীন সময় সমগ্র বেঙ্গলে প্রথম স্থান অধিকার করা গৌরব অর্জন করে। ২০১০ সালে সাধারন গ্রেডে ২জন বৃত্তি লাভ করে।

শতভাগ উপস্থিতি শতভাগ ভর্তি, শতভাগ পাশের হার নিশ্চিত করা।

পলাশ উপজেলা থেকে পারম্নলিয়া বাজার হয়ে রিক্সা অটোরিক্স্রার মাধ্যমে বিদ্যালয়টিতে যাওয়া যায়।