মেনু নির্বাচন করুন

সানের বাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

সানের বাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়টি পলাশ উপজেলা সদরের পূর্ব পাশে সাল ধোয়া বিলের দক্ষিনে এক মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে অবস্থিত। অতি প্রাচীন কালে এখানে সেন বংসের বসবাসের কারণে এলাকাটির নামকরণ করা হয় সানের বাড়ী।

এলাকার একজন সফল উদ্যোক্তা জনাব মোঃ কফিল উদ্দিন মাষ্টার একই এলাকার কিছু সংখ্যক গন্যমান্য এবং পরিশ্রমি ব্যক্তিদের নিয়ে অক্লামত্ম পরিশ্রমের বিনিময়ে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন যার নাম করণ করা হয় সানের বাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় ।ইহা ১/১/১৯৯৪ইং সালে নিম্ন মাধ্যমিক এবং ১/১/১৯৯৮ ইং সালে মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসেবে একাডেমিক স্বীকৃতি লাভ করে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোঃ বাহাউদ্দিন গাজী 01716-790684 bahaddin@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

৪৭৪ জন। শ্রেণী শিক্ষার্থী শ্রেণী শিক্ষার্থী শ্রেণী শিক্ষার্থী ৬ষ্ঠ ১১৫ ৮ম ১৬৮ ১০ম ৬১ ৭ম ৮১ ৯ম ৪৯

এস.এস.সি-৯৬.৭৭%, জে.এস.সি- ৯১.৬৬%

১। মোঃ ওবায়দুল কবির মৃধা, সভাপতি ২। এম.এ.হাবিবুলস্নাহ্, শিক্ষক প্রতিনিধি ৩।মোহাম্মদ মোসত্মফা কামাল, শিক্ষক প্রতিনিধি ৪। শিলা মিত্র, সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি  ৫। অরম্নণ নাগ, অভিভাবক সদস্য ৬। জীবন পাল, অভিভাবক সদস্য ৭। বাবুল কাজী , অভিভাবক সদস্য ৮।দিলীপ পাল, অভিভাবক সদস্য ৯। বিলকিছ বেগম,সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ১০। মোঃ কফিল উদ্দিন, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ১১। মোঃ সোলেমান গাজী, দাতা সদস্য ১২। মোঃ কামরম্নল ইসলাম গাজী, কো-অপ্ট সদস্য ১২। এম.এ.হাবিবুলস্নাহ্, সদস্য সচিব, প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত)

এস.এস.সি

জে.এস.সি.

সাল

মোট পরীক্ষর্থী

উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থী

পাশের হার

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থী

পাশের হার

২০০৯

৪৭

১৭

৩৬%

 

 

 

 

২০১০

৫৪

৫২

৯৬%

২০১০

৫১

৪২

৮২%

২০১১

৩১

৩০

৯৭%

২০১১

৭২

৬৬

৯২%

২০১২

৩৩

২৪

৭৩%

২০১২

৬১

৪৬

৭৭%

২০১৩

৪১

৩৮

৯৩%

২০১৩

১৬১

 

 

বিদ্যালয়টি বিভিন্ন সহপাঠ্যক্রমিক কার্যক্রমে অংশগ্রহন করে বহু পুরস্কার অর্জন করেছে।

বিদ্যালয়ের পাশের হার শতভাগে উন্নীত করা এবং শিক্ষার গুনগত মান বৃদ্ধি করা।

বিদ্যালয়ে যাতায়াতের জন্য উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু আছে।



Share with :

Facebook Twitter